মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

আমাদের অর্জন সমূহ

  • আমাদের খাদ্যে প্রাপ্ত প্রাণিজ আমিষের প্রায় ৬০ শতাংশ যোগান দেয় মাছ
  • দেশের জিডিপির ৩.৬১ শতাংশ মৎস্য খাতের অবদান
  • মোট জনগোষ্ঠীর ১১ শতাংশ মৎস্য কার্যক্রমে নিয়োজিত
  • বাংলাদেশ অভ্যণ্তরীণ মৎস্য আহরনে ২০১৬ সালে বিশ্বে ৪র্থ স্থান অধিকার করেছে
  • ২০১৬ সালে ইলিশের উৎপাদন ৪.০ লক্ষ মে. টন
  • বিশ্বে ইলিশ বাংলাদেশের জিআই পণ্য হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছে
  • হিমায়িত চিংড়ি, মাছ ও মৎস্যজাত পণ্য হতে রপ্তানি আয় ১.২৫ বিলিয়ন ইউএস ডলারে উন্নীতকরণ
  • মৎস্যচাষে ২৫ শতাংশ নারীর অংশগ্রহণ নিশ্চিতকরণ
  • মৎস্যচাষী/মৎস্যজীবিদের আয় ২০ শতাংশে বৃদ্ধিকরণ
  • দেশীয় ও আর্ন্জাতিক বাজারে নিরাপদ খাদ্য সরবরাহের ক্ষেত্রে উদ্যোগ গ্রহন
  • সামুদ্রিক মাছের অতি আহরণ ও আই ইউ ফিসিং নিয়ত্রন
  • সামুদ্রিক মৎস্য সম্পদের টেকসই  উৎপাদন নিশ্চিত করার লক্ষে বিঞ্জানভিত্তিক মৎস্য কার্যক্রম ব্যবস্থাপনা প্রচলন
  • ২০২০ সালের মধ্যে ২০ টি সার্ভিলেন্স চেকপোষ্ট স্থাপন
  • জেলে/ মৎস্যজীবীদের জন্য আদর্শ গ্রাম স্থাপন
  • সরকারী জলাশয় ব্যবস্থাপনার ক্ষেত্রে জেলেদের আইডি কার্ডের ব্যবহার প্রচলন ইত্যাদি

 

 

ছবি


সংযুক্তি


সংযুক্তি (একাধিক)



Share with :

Facebook Twitter